ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কঠোর বার্তা

আলিফ হোসেন,তানোরঃ

রাজশাহী-১ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ ও সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী দলের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে কঠোর বার্তা দিয়ে বলেন, আওয়ামী লীগে থেকে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থীর বিরুদ্ধে কেউ যদি বিদ্রোহী প্রার্থী হয়, তাহলে তার ফল ভাল হবে না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ দেশের সর্ববৃহত রাজনৈতিক দল এখানে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা থাকবে সেটাই স্বাভাবিক। কিন্ত্ত নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা আর স্বতন্ত্র প্রার্থীর নামে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া এক বিষয় নয়। তিনি বলেন, দলীয় মনোনয়ন যে কেউ চাইতেই পারে, তবে মনোনয়ন দেবার মালিক মনোনয়ন বোর্ড ও দলের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। ফলে তিনি যাকে যোগ্য মনে করেছেন তাকে নৌকা প্রতিক দিয়েছেন। কিন্ত্ত মনোনয়ন না পেয়ে কেউ যদি স্বতন্ত্র প্রার্থীর নামে বিদ্রোহী প্রার্থী হয় তাহলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগের আদর্শ এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় যারা বিশ্বাসী তারা কখানোই নৌকা প্রতিকের সঙ্গে বেঈমানী করতে পারেন না, যদি কেউ এটা করে তাহলে বুঝতে হবে তারা সুবিধাবাদী তারা কখানোই আওয়ামী লীগের ভালো চাইনি এখানো ভালো চাই না। তিনি বলেন, এবার শুধু বিদ্রোহী প্রার্থী নয় তাদের মদদ দাতাদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, এবার আওয়ামী লীগবিরোধী কোনো ষড়যন্ত্র সফল হবে না। তিনি সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন, ভুল থাকতে পারে তার বা তার দলের কোনো নেতাকর্মীর, কিন্ত্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কোনো ভুল করেননি, তিনি এখানো দেশের দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন। তাই আপনাদের নৈতিক দায়িত্ব মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে তার মনোনিত প্রার্থীদের বিজয়ী করা। এদিকে আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করতে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার নির্দেশ দিয়ে বলেছেন, দল থেকে যাকে প্রার্থী করা হবে, তার পক্ষেই দলীয় সব নেতা-কর্মীকে কাজ করতে হবে। সুত্র জানায়, গত ৯ অক্টোবর শনিবার বিকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন। আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে অনুষ্ঠিত এ সভায় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আবেদনপত্র, জীবনবৃত্তান্ত এবং আগে করা মাঠ জরিপ রিপোর্টের ভিত্তিতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দলের একক প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

শর্টলিংকঃ