গোদাগাড়ী পৌর নির্বাচনে নৌকার মাঝি অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস

আলিফ হোসেন, তানোরঃ
রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভার আসন্ন উপ-নির্বাচনে সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ফের নৌকার টিকেট পেয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস। এদিকে অয়েজ উদ্দিনের মনোনয়নের খবর ছড়িয়ে পড়লে আওয়ামী লীগের তৃণমুলে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও প্রাণচাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। আওয়ামী লীগ এবার যেকোনো মুল্য নৌকার বিজয় ঘটাতে চাই। অন্যদিকে পৌরবাসীর বোধদয় হয়েছে এটা স্থানীয় নির্বাচন ক্ষমতা পরিবর্তনের নয়, কাজেই সরকার সমর্থক প্রার্থীর বিজয় ব্যতিত উন্নয়ন সম্ভব নয়, তারা উন্নয়নের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে নৌকার বিজয় চাই।
জানা গেছে, উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগের তিন নেতার নামের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল। গোদাগাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের করা এই তালিকায় সুপারিশ করেছিল উপজেলা শাখা। পরে উপজেলা আওয়ামী লীগ সেটি জেলা আওয়ামী লীগের কাছে পাঠায়। জেলা আওয়ামী লীগ এই তালিকা পাঠিয়েছিল কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে।তালিকায় যে তিন নেতার নাম ছিল তাঁরা হলেন- পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুল মালেক এবং পৌর যুবলীগের সভাপতি অধ্যাপক আকবর আলী। এদের মধ্যে আবদুল মালেক বর্তমানে উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক আকবর আলী একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। তাই অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাসের উপর আস্থা ও বিশ্বাস রেখে তাকে দলীয় প্রার্থী করেছেন আওয়ামী লীগ। গোদাগাড়ী পৌরসভার মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবু গত এপ্রিলে মারা যাওয়ায় উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। যাচাই-বাছাই হবে ১৫ সেপ্টেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এবং ৭ অক্টোবর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, তারা শেষ বারের মতো
অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাসককে নিয়ে ভোট করতে চাই এবার তারা তাকে বিজয়ী করবেন ইনশাল্লাহ্। এবিষয়ে
অয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস বলেন, এলাকার মানুষ তাঁকে ভোট না দিয়ে বার বার ভুল করেছেন, সেটা মানুষ বুঝেছেনও। আর তাঁকে ঘিরে যত বিতর্ক, তা সত্য নয় প্রতিপক্ষের প্রপাগান্ডা দাবি করে বলেন, তিনি বলেন, এবার তিনি বিজয়ী হবেন ইনশাল্লাহ্। তিনি পৌরবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

শর্টলিংকঃ