দুর্গাপুরে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী কারখানায় পুলিশের অভিযান আটক এক, বিপুল নকল প্রসাধনী উদ্ধার

শেখ সাদী, দুর্গাপুর

রাজশাহীর দুর্গাপুরে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী সামগ্রী তৈরীর কারখানায় অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। অভিযানকালে প্রসাধনী তৈরীর কারখানার মালিক সালমা বেগম নামের এক নারিকে গ্রেপ্তার করা কওে পুলিশ।
রবিবার রাতে উপজেলার চৌপুকুরিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে এসব মালামাল উদ্ধার করা হয়। দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুর্গাপুর থানা পুলিশ উপজেলার চৌপুকুরিয়া পুর্বপাড়া গ্রামের তইজাল আলীর বাড়ীতে অভিযান পরিচারনা করা হয়। অভিযান কালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তইজান তার সহপাটি ইমান আলী,মমিনুল ইসলাম ও মিঠুনসহ তারা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এসময় অপর সহপাটি তইজানের স্ত্রী সালমা বেগম (৩৮) পুলিশের জালে আটকা পড়ে যায়। পরে ওই কারখানায় তল্লাশী চালিয়ে বিপুল পরিমান ভেজাল কসমেটিকস প্রসাধনী সামগ্রী তৈরীতে ব্যবহৃত মালামাল উদ্ধার করা হয়।
ওসি আরো জানান, তারা বেশ কিছুদিন থেকে লতা হারবাল নামে একটি কোম্পানীর পণ্যের নাম ব্যবহার করে নকল কসমেটিকস প্রসাধনী তৈরী ও বাজারজাত করে আসছিলো। উদ্ধারকৃত প্রসাধনী হল দুইটি সাদা প্লাস্টিকের বস্তায় রক্ষিত খঅঞঅ ঐঅজইঅখ ঝকওঘ ইজওএঐঞ ঈজঊঅগ লেখা কাগজের তৈরী খালী পেকেট। একটি স্টিলের তৈরী ড্রাম। একটি লোহার তৈরী মেশিন। একটি ইলেক্ট্রিক ভাইব্রেশন মেশিন। একটি ইলেক্ট্রিক ঐঊঅঞএটঘ, একটি প্লাস্টিকের বড় ব্যাগের মধ্যে রক্ষিত খঅঞঅ ঐঅজইঅখ ঝকওঘ ইজওএঐঞ ঈজঊঅগ ছোট বড় লেবেল, দুইটি কন্টিনারে রক্ষিত সাদা রংয়ের ১৬ কেজি ভেজাল প্রসাধনী সামগ্রী তৈরীতে ব্যবহৃত পেস্ট, ভেজাল ক্রিম তৈরীতে ব্যবহৃত অফ হোয়াইট রংয়ের ৩০ কেজি পেস্ট, অফ হোয়াইট রংয়ের ১০ কেজি পেস্টসহ সর্ব মোট চার লক্ষ আটত্রিশ হাজার টাকার মালামাল উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় আটক সালমা বেগমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধ্যে মালা হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে বলে জানান ওসি।

শর্টলিংকঃ