বাগমারায় মহিলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিকসম্মেলন ঘিরে সাজ সাজ রব

বাগমারা প্রতিনিধিঃ

রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঘিরে নতুনরুপে সেজেছে উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ। দীর্ঘ ৭ বছর পর মহিলা আওয়ামী লীগের এইসম্মেলন উপলক্ষে সরগরম হয়ে উঠেছে পুরো উপজেলা। ওয়ার্ড থেকে শুরু করে ইউনিয়নএবং উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মাঝে বিরাজ করছে উৎসাহ আরউদ্দীপনা। সাজানো হয়েছে উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ। তোরণ নির্মান করা হয়েছেআওয়ামী লীগ সহ মহিলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে।আগামী ২০ মার্চ ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে উপজেলামহিলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। তৃতীয় বারের মতো উপজেলা মহিলাআওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সুসংগঠিত অব¯’ানে থেকে দলীয়কার্যক্রম পরিচালিত করে আসছে মহিলা লীগ। বাগমারায় আওয়ামী লীগের শক্তি হিসেবে কাজ করে যা”েছ মহিলা লীগ। মহিলাআওয়ামী লীগের সভাপতি মরিয়ম বেগম এবং সাধারণ সম্পাদক কহিনুর বানুর নেতৃত্বে শত প্রতিকূলতা পেরিয়ে রাজনৈতিক সাফল্যের শিখরে অব¯’ান করছেন মহিলা লীগ।সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত সংগঠনের স্বার্থে কাজ করে চলেছে তারা।জাতির জনকের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে পরিবারের পাশাপাশি রাজনীতির মাঠে কাজকরছেন সমান তালে। এক সময়ের অশান্ত বাগমারায় নারীদের বাহিরে চলাচল ছিল কষ্টসাধ্য। সেখানে ২০০৮ সাথে ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক সংসদ সদস্য নির্বাচিতহওয়ার পরে শান্তির জনপদে পরিনত হয়েছে। নারীরা এখন পরিবারে যে ভাবে চলাচল করেসেভাবে উপজেলা জুড়ে চলাফেরা করতে পারছে। আওয়ামী লীগ সরকারের দুরদর্শী নেতৃত্বেই তা সম্ভব হয়েছে। বর্তমান সরকার মহিলাদের উন্নয়নের বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে চলেছেন।গ্রামের প্রত্যন্ত এলাকার মহিলাদের নিকট পৌঁছে যা”েছ আওয়ামী লীগ সরকারেরসহযোগিতা। দীর্ঘ সময় ধরে মহিলা লীগের সংগঠনকে সফলতার সাথে পরিচালিত করেচলেছেন সভাপতি মরিয়ম বেগম এবং সাধারণ সম্পাদক কহিনুর বানু। ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হলেও বেশ কয়েক বছর ধরে হয়নি মহিলা লীগের সম্মেলন। কয়েক বছরপরে উপজেলা মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হওয়ায় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকপদে একাধিক প্রার্থীর আনাগোনা লক্ষ্যে করা যা”েছ। এদিকে মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি এবংসাধারণ সম্পাদক বলেন, আমাদের উপরে অর্পিত দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সাথে যথাযথভাবে পালনের চেষ্টা করে চলেছি। দিবা-রাত্রী সংগঠনের কাজে পরিশ্রম করে গেছি।সংগঠনের স্বার্থে আমাদেরকে আবারও দায়িত্ব প্রদান করলে জাতির পিতার আদর্শমেনে কাজ করে যাবো।

শর্টলিংকঃ