মহাদেবপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে মারপিটে নারীসহ আহত ০৭

মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর মহাদেবপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের মারপিটে নারীসহ গুরুতর আহত হয়েছে ৭ জন। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার বিকেল ৫টায় উপজেলার হাসানপুর গ্রামে। এ ঘটনায় আহতরা হলেন, হাসানপুর গ্রামের মৃত কফিল উদ্দীনের পুত্র মমতাজ (৬৫), তার স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৫৮), ছেলে ফিরোজ হাসান (৩৫), ফিরোজের স্ত্রী সাথী আক্তার (৩০), বারবাকপুর গ্রামের আসগর আলীর পুত্র মোহাম্মদ আলী (৩৫), বকাপুর গ্রামের ইছা মন্ডলের পুত্র আব্দুস সালাম (৫৫) ও মহিলা কলেজ পাড়ার কলিমুদ্দীনের পুত্র সাইফুল (২৪)। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওইদিন রাতেই সাথী আক্তার ও আব্দুস সালামকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ফিরোজের অবস্থার অবনতি হওয়ায় পরদিন মঙ্গলবার দুপুরে তাকেও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। বাকীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে। ভুক্তভোগী মোহাম্মদ আলী জানান, বিকেলে তারা তাদের জমির ধান দেখতে গেলে হাসানপুর গ্রামের মৃত হাতেম আলীর পুত্র হাবিবুর রহমান, মোঃ হারুন, মোঃ নাসির, খয়বর আলীর পুত্র মোঃ নয়ন, মোজামের পুত্র পিন্টু, নাসিরের পুত্র রশিদুল, হাবিবুরের পুত্র ফয়সাল, মৃত আজিমুদ্দিনের পুত্র আবু বক্করসহ বেশ কিছু লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। উল্লেখ্য যে, গত ১৬ নভেম্বর ৫বিঘা জমির আতব ধানে কীটনাশক ছিটিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় মোহাম্মদ আলী বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে প্রতিপক্ষরা ক্ষিপ্ত হয়ে মারপিটের এ ঘটনা ঘটায়। এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজম উদ্দীন মাহমুদ জানান, এ ঘটনা তিনি শুনেছেন, এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শর্টলিংকঃ