রাজশাহীতে ড্রাম থেকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহীঃ

রাজশাহীতে ড্রামে ভরা এক অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ড্রামের মধ্যে দুইটি বালিশ ও কাঁথা ছিলো। ঐ নারীর বসয় আনুমানিক ২০-২২ বছর হবে ধারনা করছেন পুলিশ।

শুক্রবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে লাশ ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেল মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়।
পুলিশ ধারনা করছে ধর্ষণ শেষে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে হত্যা করে। পরে প্লেনসিটের একটি নতুন ড্রামে করে তালাবদ্ধ অবস্থায় নগরীর সিটি হাটের আধা কিলোমিটার পশ্চিমে টিকর নামক স্থানে ডোবার ধারে ফেলে রেখে গেছে হত্যাকারীরা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ ধারণা করছেন ঐ নারী আদিবাসী সাঁওতাল সম্প্রদায়ের। আবার কোন কোন পুলিশ ধারনা করছেন হিন্দু সম্প্রদায়ের হতে পারে।
ঘটনাস্থলে গেলে পানি সেচ দিতে আসা শ্যালো চালক রবি বলেন, শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে শ্যালো মেশিন নিয়ে ধানের জমিতে পানি সেচ দিতে আসলে ডোবার ধারে একটি নতুন প্লেনসিটের ড্রাম দেখতে পান। এটা দেখে তিনি হড়গ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য শুকুর আলীকে খবর দেন। শুকুর আলী খবর পেয়ে সেখানে এসে ড্রামের তালা ভেঙ্গে লাশের পা দেখতে পান। এ অবস্থায় তিনি থানায় ফোন করেন বলে জানান রবি। পরে ডিবি, থানা পুলিশ ও ক্রাইম সিনের সদস্যরা সেখানে আসেন এবং সুরতহাল করে লাশ উদ্ধার করে মেডিকেলে পাঠান।
এ বিষয়ে জানতে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের উপপুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, লাশের এখনো কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। সুরতহাল রিপোর্ট আসলে আরো সঠিক তথ্য পাওয়া যাবে। তবে এর সঙ্গে জড়িত যেই হোক খুঁজে বের আইনের আওতায় আনা হবে বলে জানান তিনি।
এস আর

শর্টলিংকঃ